• ঢাকা
  • বৃহস্পতিবার, ২৪শে জুন, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ১০ই আষাঢ়, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ | ১৪ই জিলকদ, ১৪৪২ হিজরি

রাত ২:৪৭

বগুড়ার শেরপুরে ‘ডোর টু ডোর’ চালু


Share with friends

আব্দুল ওয়াদুদ, শেরপুর (বগুড়া) থেকে: বাংলাদেশে এই করোনা মহামারি প্রকোপ বাড়ছে এই অবস্থায় বগুড়া বাসীকে ঘরে থাকার আহবান জানান এবং সরকারী সকল বিধি নিষেধ মেনে চলতে বগুড়ার শেরপুরে বগুড়া জেলা পুলিশের আয়োজনে ও শেরপুর থানার উদ্যোগে নিত্য প্রয়োজনীয় দ্রব্য ও কাঁচাবাজারের ভ্রম্যমান বিক্রয় কেন্দ্র এবং ‘ডোর টু ডোর’ চালু করা হয়েছে।

আজ শুক্রবার (২৪ এপ্রিল) সকাল ১১ শেরপুর ধুনটমোড় এলাকায় শেরপুর থানা অফিসান ইনচার্জ হুমায়ুন কবীর এর সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে উদ্বোধন করেন, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (শেরপুর সার্কেল) গাজিউর রহমান। এ সময় উপস্থিত ছিলেন, ট্রফিক ফাঁড়ীর টিআই জাহিদ হোসেন, শেরপুর থানা পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) আবুল কালাম আজাদ, পুলিশ ফাঁড়ি টিআই হারুন অর রশিদ, এস আই এবাদ আলী মোল্লা, এস আই সাচ্চু, সার্জন্ট ওমর ফারুক, ফিরোজ আহম্মেদ, মুঞ্জুরে মাওলা প্রমুখ।

শেরপুর থানা সুত্রে জানা যায়, নিত্য প্রয়োজনীয় দ্রব্য ও কাঁচাবাজারের ভ্রাম্যমান ১০ টি টিম (প্রাথমিক ভাবে) উপজেলার বিভিন্ন পয়েন্টে বিক্রয় শুরু করেছে। প্রতিদিন সকাল ১০টা থেকে বিক্রয়ের পাশাপাশি যারা কল করবেন বাড়ি বাড়ি মালামাল সরবারহ চলবে।

বাজার মূল্যের চেয়ে কম দামে, যাতায়াত খরচ ছাড়াই আপনি সামাজিক দূরত্ব নিশ্চিত করে ঘরের দরজা থেকেই ক্রয় করতে পারবেন। আপনাকে যেতে হবে না, দোকানে । শেরপুর থানা অফিসার হুমায়ুন কবীর জেলা প্রশাসনকে ধন্যবাদ জানিয়ে বলেন, এটি একটি দারুন উদ্যোগে বাংলাদেশে এই করোনা মহামারি প্রকোপ বাড়ছে এই অবস্থায় শেরপুর বাসীকে ঘরে থাকার আহবান জানান এবং সরকারী সকল বিধি নিষেধ মেনে চলার আহবান জানান।

অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (শেরপুর সার্কেল) গাজিউর রহমান বলেন, করোনায় আক্রান্ত রোগি আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা বাড়ছে! তাই জেলা প্রশাসনের সম্মিলিত প্রচেষ্টার একটি —- ‘ডোর টু ডোর সপ’ চালু করা হলো।

তিনি শেরপুর বাসীর উদ্দেশ্য করে বলেন, আপনার ঘরে থাকা নিশ্চিত করতে আপনাদের এর বাইরেও যদি কিছু প্রয়োজন হয় (মাছ,মাংস,ওষুধ ইত্যাদি) হট লাইনে কল (০১৭৪১-০৯৮৭০৭) করুন পৌঁছে দেবো আমরা। হেঁটে বা সাইকেলে যাতায়াত খরচ লাগবে না। তারপরেও অনুরোধ শুধুমাত্র বাজার দেখতে ভীড় করবেন না দয়া করে।