• ঢাকা
  • সোমবার, ২৬ অক্টোবর, ২০২০ | ১০ কার্তিক, ১৪২৭ | ৯ই রবিউল আউয়াল, ১৪৪২ হিজরি

বিকাল ৪:৩১

হিন্দু ভাইয়ের মুখাগ্নি করল মুসলিম বোন


Share with friends

পাতানো ভাইকে শুধু আশ্রয় দেননি, মৃ’ত্যুর পর মুখাগ্নিও করলেন আসামের শি’বসাগর জে’লার মু’সকান বেগম। এ নিয়ে অবশ্য প্রশংসা যেমন জুটেছে তেমনই শুনতে হয়েছে সমালোচনাও। ভা’রতের সংবাদমাধ্যমে এ খবর প্রকাশ হয়েছে।

Home2 Side ads

ছোটবেলায় বাবা হা’রানো ধ্রুব ঠাকুর দাদীর কাছেই বড় হয়েছেন। তখন থেকেই মু’সকান বেগমকে বড় বোনের মতো দেখতেন। মু’সকান বেগম ও ধ্রুব ঠাকুরের মধ্যে গড়ে উঠে ভাই-বোনের স’ম্পর্ক। বিয়ের পর মু’সকান চলে যান শি’বসাগরে। বিয়ে করে ধ্রুব ঠাকুরও। তবে অ’ত্যধিক ম’দ্যপানের অভ্যাস থাকায় পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে বনিবনা হয়নি বেশি দিন। পরিবারের সদস্যদের থেকে আলাদা থাকা শুরু করেন ধ্রুব।

Home2 Side ads
Home2 Side ads

এরইমধ্যে সম্প্রতি আচ’মকা মা’রা যান ধ্রুব ঠাকুর। হিন্দু সৎকার রীতি অনুযায়ী তাকে মুখাগ্নি করতেও কেউ এগিয়ে আসেনি। তবে প্রয়াত ভাইয়ের মুখাগ্নি করতে পিছপা হোননি মু’সলিম বোন মু’সকান বেগম। তিনিই ভাইয়ের লা’শ শশ্মানে নিয়ে যান এবং মুখাগ্নি করেন।

এ ঘটনায় অবশ্য মিশ্র প্রতিক্রিয়া জন্ম নিয়েছে। কেউ বলছেন ধ’র্ম, বর্ণ ভেদাভেদের ঊর্ধ্বে উঠেছে ভাই-বোনের স’ম্পর্ক। আবার অনেকেই করছেন সমালোচনা। ধ’র্মীয় রীতিনীতির তোয়াক্কা না করাই মূলত সমালোচনার কারণ। তবে মু’সকান বেগম নিজে কোনো কথায় কান দিচ্ছেন না। তার মতে শুধুই এক ভাইয়ের প্রতি বোনের দায়িত্ব পালন করেছেন তিনি।

single page ads 3