• ঢাকা
  • বৃহস্পতিবার, ২৪শে জুন, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ১০ই আষাঢ়, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ | ১৪ই জিলকদ, ১৪৪২ হিজরি

রাত ৩:০৫

২০টি মাস্কের দাম ৩০ হাজার, আটক ৪


Share with friends

প্রকাশিত: ১২:৩০ পূর্বাহ্ণ, ১৮ এপ্রিল ২০২০

করোনা ভাইরাস প্রতিরোধ ও চিকিৎসায় ব্যবহৃত বিপুল পরিমাণ সরঞ্জাম মজুদ ও উচ্চ দামে বিক্রি করায় চারজনকে গ্রেফতার করেছে ডিএমপির রমনা বিভাগের একটি টিম। এ সময় গ্রেফতারদের কাছ থেকে ২৭৫ পিস করোনা টেস্টিং কিট, ৯ হাজার ৫০ পিস সাধারণ মাস্ক, ১০০ পিস এন ৯৫ মাস্ক, ১৯৮ পিস পিপিই, ৯৬০ জোড়া হ্যান্ড গ্লাভস, ২৫০ জোড়া চশমা, ৯০০টি ক্যাপ ও ১৪৪০ টি শু-কাভার উদ্ধারের পর জব্দ করা হয়। বৃহস্পতিবার (১৬ এপ্রিল) রাতে বাংলামোটরের জহুরা টাওয়ারে অবস্থিত এবিসি করপোরেশনের কার্যালয়ে অভিযান চালিয়ে তাদের গ্রেফতার করা হয়। গ্রেফতারকৃতরা হলেন, আনোয়ার হোসেন, অমিত বসাক, শোয়াইব ও শুভ।

অভিযানের নেতৃত্ব দেওয়া রমনা জোনের সিনিয়র সহকারী পুলিশ কমিশনার (এসি) শেখ মোহাম্মদ শামীম বলেন, সন্ধ্যার পর মগবাজার মোড়ের চেকপোস্টে ডিউটি করছিলাম। তখন এক ব্যক্তি এসে অভিযোগ করেন বাংলামোটরের এক ব্যবসায়ী ২০টি মাস্কের মূল্য হিসেবে তার কাছ থেকে ৩০ হাজার টাকা রেখেছেন, যদিও মাস্কগুলোর প্রকৃত মূল্য মাত্র ৩ হাজার ৬০০ টাকা।

বিষয়টি আমলে নিয়ে এবিসি করপোরেশনে অভিযান চালিয়ে চারজনকে গ্রেফতার করা হয়। এসময় তাদের কাছ থেকে বিপুল পরিমাণ করোনা প্রতিরোধী সামগ্রী পাওয়া যায়। যার মধ্যে করোনা টেস্টিং কিটও রয়েছে যা বেসরকারিভাবে পাওয়ার কথা নয়। চক্রটি অধিক মুনাফার লোভে অতি জরুরি এসব পণ্য অবৈধভাবে গুদামজাত করে রেখেছে।

শাহাবাগ থানার ওসি আবুল হাসান বলেন, করোনা ভাইরাস প্রাদুর্ভাবের সময় জরুরি চিকিৎসা সামগ্রী অবৈধভাবে মজুদ করার অভিযোগে তাদের নামে বিশেষ ক্ষমতা আইনের ২৫/২৫(বি) ধারায় একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে।

কেএ/ডিএ