• ঢাকা
  • বৃহস্পতিবার, ২৪শে জুন, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ১০ই আষাঢ়, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ | ১৪ই জিলকদ, ১৪৪২ হিজরি

রাত ২:১৭

ইউএনও’র ফেসবুক পোস্টে ভাগ্য বদলাচ্ছে এক ভ্যানচালকের


Share with friends

মুজিবনগর উপজে’লা নির্বাহী অফিসারের একটি ফেসবুক পোস্টে ভাগ্যের পরিবর্তন হতে চলেছে ওই উপজে’লার সোনাপুর গ্রামের ভ্যানচালক ইস’লাম শেখের।

দ্রুত তিনি পেতে চলেছেন প্রধানমন্ত্রীর ‘জমি আছে ঘর নাই’ প্রকল্পের একটি ঘরসহ বিভিন্ন সুযোগ সুবিধা।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা যায়, গত শনিবার (১৮ এপ্রিল) মুজিবনগর উপজে’লা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) ওসমান গনি ভ্রাম্যমাণ আ’দালতের অ’ভিযানে সোনাপুর গ্রামে যান। এ সময় তিনি করো’না পরিস্থিতিতে সরকারি নির্দেশনা ভঙ্গকারী ওই গ্রামের ভ্যানচালক ইস’লাম শেখের বাড়ি ও পরিবারের লোকজনকে দেখে বিস্মিত হন।

তিনি দেখেন, একটি মাত্র বেড়ার কুড়ে ঘরে বিয়ের উপযু’ক্ত দুই কন্যা ও একপুত্রসহ স্বামী-স্ত্রী’ মিলে পাঁচ জন অমানবিকভাবে বসবাস করছেন ইস’লাম শেখ।

ওই ঘরটুকুর মধ্যেই রান্না-খাওয়া ও থাকা-ঘুমানো। এর ওপর ভাঙাচো’রা টিনের এ ঘরটির বেড়ার ফাঁক দিয়ে বিড়াল-কুকুর ও সাপ-পোকামাকড় সহ’জে ঢুকতে পারে। তাই ভগ্নস্বাস্থ্য নিয়ে দাঁড়িয়ে থাকা ভ্যানচালক ইস’লাম শেখকে দেখে তিনি সাজা না দিয়ে ফিরে আসেন। ওই দিন সন্ধ্যায় তার ফেসবুকে সচিত্র পোস্ট দেন ‌‘সাজা দেবো নাকি সাজা নেবো’ ?

তিনি ফেসবুকে এ কথাও লেখেন, তার নিকট থেকে জ’রিমানা আদায় না করে বরং কিছু টাকা তার পরিবারের হাতে তুলে দেওয়া উচিত। এছাড়া তিনি ওই পরিবারকে যতটুকু সম্ভাব্য সহযোগিতা দেওয়ার কথাও চিন্তা করেন।

এদিকে তার ফেসবুকের এ পোস্টটি ভাই’রাল হয়। চোখে পড়ে সরকারের জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী ফরহাদ হোসেন এমপি’র। তিনি ভ্যানচালক ইস’লাম শেখকে প্রধানমন্ত্রীর ‘জমি আছে ঘর নাই’ প্রকল্পের একটি ঘরসহ বিভিন্ন সুযোগ সুবিধা প্রদানের সিদ্ধান্ত নেন।

এ ব্যাপারে যথাযথ ব্যবস্থা নিতে মুজিবনগর উপজে’লা নির্বাহী অফিসারকে নির্দেশ দেন তিনি। এছাড়াও সরকারি বিভিন্ন প্রকল্প হতে ওই পরিবারকে সহযোগিতা করার নির্দেশ দেন।