• ঢাকা
  • মঙ্গলবার, ২২শে জুন, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ৮ই আষাঢ়, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ | ১২ই জিলকদ, ১৪৪২ হিজরি

বিকাল ৫:৩৫

গভীর রাতে খাবার নিয়ে মধ্যবিত্ত ও প্রবাসীর বাড়িতে বানারীপাড়ার ওসি


Share with friends

গভীর রাতে কর্মহীন মধ্যবিত্ত নিম্ন-মধ্যবিত্ত ও প্রবাসী পরিবারকে খাবার পৌঁছে দিলেন বানারীপাড়া থা’নার ওসি শিশির কুমা’র পাল।

করোনাভাইরাস প্রতিরোধে সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখার লক্ষ্যে সোমবার গভীর রাতে পৌর শহরের ১, ২ ও ৯নং ওয়ার্ডের কর্মহীন ২৫টি মধ্যবিত্ত, নিম্ন-মধ্যবিত্ত ও প্রবাসীর পরিবারকে খাবার পৌঁছে দেন তিনি।

একইভাবে তিনি মঙ্গলবার বানারীপাড়া সদর ইউনিয়নের মাছরং, সলিয়াবাকপুর ইউনিয়নের মহিষাপোতা গ্রামের ৩৫টি পরিবারকে খাবার দেন। এ ছাড়া রাতে পৌর শহরের টিএনটির মোড় সংলগ্ন ঋষি সম্প্রদায়ের কর্মহীন পরিবারের মাঝে তিনি খাবার বিতরণ করেন।

এ সময় ওসি খাবার হাতে ওই পরিবারের বাড়িতে গিয়ে বলেন, বাপজান ঘরের দরজাটা একটু খুলুন। আমি আপনাদের সেবক। আমি আপনার থা’নার ওসি শিশির বলছি।

এভাবে গভীর রাতে কর্মহীন এ সব পরিবারের ঘরের সামনে গিয়ে থা’নার ওসি শিশির কুমা’র পাল নিত্যপ্রয়োজনীয় খাবার হাতে হাজির হন। তার হাতে খাবার দেখে আনেকেই অ’বাক হয়ে পড়েন। এ সময় তারা ওসির প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন।

এ সময় ওসি শিশির কুমা’র পাল তাদের বলেন, করোনাভাইরাস প্রতিরোধে আপনারা সবাই সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে চলাফেরা করবেন। এ ছাড়া জরুরি কোনো কাজ না থাকলে আপনারা বাড়ি থেকে বাইরে বের হবেন না। যদি কারও ঘরে খাবার প্রয়োজন পড়ে তাহলে থা’নার ওসির নাম্বারে ফোন করে জানানোর জন্য তিনি আহবান জানান।

এ সময় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন পরিদর্শক (ত’দন্ত) মো.জাফর আহম্মেদ, এসআই মো.হাফিজুর রহমান, এএসআই মো. জাহিদ হোসেন প্রমুখ।

এ দিকে মঙ্গলবার বানারীপাড়া উপজে’লা করোনা প্রতিরোধ কমিটির সভাপতি নির্বাহী কর্মক’র্তা শেখ আবদুল্লাহ সাদীদের নেতৃত্বে ৮টি ইউনিয়নে ৩০০ পরিবার ও পৌর মেয়র অ্যাডভোকেট সুভাষ চন্দ্র শীলের নেতৃত্বে পৌর শহরের ৯টি ওয়ার্ডের কর্মহীন ২০০ পরিবারকে বাড়ি বাড়ি খাবার পৌঁছে দেয়া হয়।

এ সময় তারা প্রতিটি পরিবারকে ১০ দিনের খাবার হিসেবে ১০ কেজি চাল, ৫ কেজি আলু, ১ কেজি ডাল, ১ কেজি পিঁয়াজ, ১ লিটার তেল, ১টি সাবান ও ১ কেজি লবণ বিতরণ দেয়া হয়।