• ঢাকা
  • রবিবার, ২০শে জুন, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ৬ই আষাঢ়, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ | ১০ই জিলকদ, ১৪৪২ হিজরি

রাত ৪:১৭

গ্রামের মানুষকে মারতে পাঁচটি নলকূপে বিষ দিলেন এক নারী!


Share with friends

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সরাইলের শাখাইতি গ্রামের মানুষের ওপর প্র’তিশোধ নিতে পাঁচটি নলকূপে বি’ষ ঢেলে দিলেন এক নারী। এতে গ্রামের সেই পাঁচ নলকূপের পানি পান থেকে বিরত রয়েছেন গ্রামবাসী। খবর পেয়ে পু’লিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে।

শাখাইতি গ্রামের ইউপি সদস্য সুমন মুন্সি বলেন, গ্রামের প্রবাসী অহেদ মিয়ার স্ত্রী’ আনেছা বেগম ও তার ছে’লে জীবন মিয়া শাখাইতি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় মাঠের নলকূপ ও গ্রামের নজরুল মিয়ার বাড়ি, শামসু মিয়ার বাড়ি, রমিজ মিয়ার বাড়ি ও রিপন মিয়ার বাড়ির নলকূপে বি’ষ ঢেলে দেয়। এসময় নজরুল মিয়ার স্ত্রী’ নলকূপে বি’ষ ঢালার দৃশ্য দেখে চি’ৎকার করলে গ্রামবাসী বি’ষসহ মা ও ছে’লেকে আট’ক করে পু’লিশে সর্পদ করে।

পানিশ্বর ইউপি চেয়ারম্যান দ্বীন ইস’লাম ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, গ্রামের লোকদের ওপর প্র’তিশোধ নিতেই আনেছা বেগম নামে ওই নারী এ কাজ করে থাকতে পারেন।

কারণ হিসেবে ইউপি চেয়ারম্যান বলেন, কিছুদিন আগে এই নারী নিজের বসতঘরে মাটি দিয়ে কবর বানিয়ে সেটাকে গা’য়েবি কবর প্রচার করে লোকসমাগম করেন। অনেকে সেই কবরে মোমবাতি, নগদ টাকা ফেলে সেজদা দিতে শুরু করে। খবর পেয়ে পু’লিশ এসে গ্রামের লোকদের সহায়তায় সেই কথিত অলৌকিক কবর ভে’ঙে দেয়।

সরাইল থা’নার পরিদর্শক (ত’দন্ত) নুরুল হক বলেন, আমি করোনা ডিউটিতে সেইসময় পানিশ্বর বাজার এলাকায় ছিলাম। ইউপি চেয়ারম্যান ও মেম্বারের খবরে ঘটনাস্থলে গিয়ে দেখি গ্রামের লোকজন ওই মহিলাকে আ’ট’কে রেখেছে। গ্রামের লোকদের দাবি, এই মহিলা পাঁচটি নলকূপে বিষ দিয়েছে। আমি নলকূপগুলো থেকে বি’ষের গন্ধ পেয়েছি। করোনা পরিস্থিতি ও নানা কারণে সেই মহিলাকে থা’নায় আনিনি।