• ঢাকা
  • রবিবার, ২০শে জুন, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ৬ই আষাঢ়, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ | ১০ই জিলকদ, ১৪৪২ হিজরি

রাত ৩:৩০

বগুড়ায় ভারত ফেরত ২ জন প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টিনে, নমুনা সংগ্রহ


Share with friends

প্রকাশিত: ৫:৫৫ অপরাহ্ণ, ১৪ এপ্রিল ২০২০

আব্দুল ওয়াদুদ, শেরপুর (বগুড়া) থেকে : বগুড়ার নন্দীগ্রামে ভারত ফেরত ২ জনকে প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টিনে রাখা হয়েছে। এছাড়া করোনাভাইরাস সনাক্ত করতে চিকিৎসা নিয়ে আসা দুইজনের শরীর থেকে নমুনা সংগ্রহ করেছেন স্বাস্থ্য বিভাগ।

মঙ্গলবার সকালে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডা. ইকবাল মাহমুদ এ তথ্য নিশ্চিত করেন। সোমবার রাতে যশোর বেনাপোল ইমিগ্রেশন চেকপোস্ট দিয়ে তারা দেশে ফেরেন। উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে সূত্রে জানা গেছে, সম্প্রতি উপজেলার চাঙ্গইর গ্রামের ৪০ বছরের এক মহিলা ও হাটকড়ই গ্রামের ৫৫ বছরের এক ব্যক্তি (পুরুষ) চিকিৎসার জন্য ভারতে গিয়েছিলেন। সোমবার রাতে যশোর বেনাপোল ইমিগ্রেশন চেকপোস্ট দিয়ে তারা দেশে ফেরেন। পরে তাদের দুইজনকে নন্দীগ্রামে সরকারি পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়ে প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টিনে রাখা হয়েছে। তাদের প্রত্যেককে ১৪ দিনের প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টিনে রাখা হবে। তবে তারা সুস্থ রয়েছেন।

এদিকে করোনা ভাইরাসের বিস্তাররোধে দেশের প্রত্যেক উপজেলা থেকে অন্তত দুজন করে সন্দেহভাজন ব্যক্তির নমুনা পরীক্ষা করার নির্দেশ দিয়েছেন সরকার। তারই ধারাবাহিকতায় এ উপজেলায় প্রথম একজন পুরুষ ও একজন মহিলার শরীর থেকে নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে। এই দুইজন নন্দীগ্রাম উপজেলার পুনাইল ও বিজরুল গ্রামের বাসিন্দা। কাশি ও সর্দি জ্বর নিয়ে তারা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসা নিতে এসেছিলেন। এসময় তাদের শরীর থেকে নমুনা সংগ্রহ করা হয়। এ বিষয়ে উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা ডা. তোফাজ্জল হোসেন বলেন, উপজেলায় করোনাভাইরাস সনাক্ত করতে দুইজনের নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে। এদের নমুনা পরীক্ষার জন্য বগুড়া জেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তার নিকট পাঠানো হয়েছে। নমুনা পরীক্ষার রিপোর্ট আসলে জানা যাবে তারা আক্রান্ত কি না।

এ প্রসঙ্গে উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোছা. শারমিন আখতার বলেন, ভারত থেকে দেশে আসার পর পরই তাদের প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টিনে রাখা হয়েছে। তাদের ১৪ দিন প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টিনে রাখা হবে।

এমআর/এনই