• ঢাকা
  • রবিবার, ২০শে জুন, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ৬ই আষাঢ়, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ | ১০ই জিলকদ, ১৪৪২ হিজরি

রাত ৪:২২

বরিস জনসনের অবস্থার অবনতি


Share with friends

করোনা ধরা পড়ার ১০ দিন পর যুক্তরাজ্যের প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসনকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। অবস্থার অবনতি হওয়ার পর মঙ্গলবার তাকে হাসপাতালের একটি নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে। একটানা ১০ দিনেরও বেশি সময় ধরে তার শরীরে উচ্চ তাপমাত্রা ছিল। পরবর্তী ২৪ ঘণ্টায় তার অবস্থার দ্রুত অবনতি ঘটছিল। আশঙ্কাজনক রোগীদের চিকিৎসা দেয়া হয়; এমন একটি নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে (আইসিইউ) তাকে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। তাকে অক্সিজেন দিতে হয়েছে। তবে তিনি জ্ঞান হারাননি বলে জানিয়েছে তার অফিস।

এর আগে করোনা আক্রান্ত হয়ে ১০ দিন বাসায় ছিলেন বরিস জনসন। বাসায় থেকেও তিনি অনলাইনে সব ধরনের কাজ করার চেষ্টা করেছেন। সরকারি মন্ত্রীরা হুঁশিয়ারি দিয়ে বলেছেন, প্রধানমন্ত্রী কাজের চাপ নিয়ে নিজের স্বাস্থ্যকে ঝুঁকির মুখে ফেলে দিয়েছেন। দেশটির স্বাস্থ্যমন্ত্রী নাদিন ডরিস মন্ত্রিপরিষদের প্রথম সদস্য যিনি করোনা আক্রান্ত হয়েছিলেন। তিনি এখন পুরোপুরি সুস্থ হয়ে ওঠেছেন। তিনি বলেন, জনসনকে ঘুমাতে হবে ও সুস্থ হয়ে ওঠতে হবে।

ডাউনিং স্ট্রিটের এক মুখপাত্র গত রাতে বলেছিলেন, চিকিৎসকের পরামর্শে প্রধানমন্ত্রী রাতে কয়েকটি পরীক্ষার জন্য হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন। এটি একটি সতর্কতামূলক পদক্ষেপ। যেহেতু প্রধানমন্ত্রী ভাইরাসে আক্রান্ত এবং দশ দিন পরেও করোনাভাইরাসের লক্ষণ রয়েছে।

গত ২৭ মার্চ বরিসের শরীরে প্রথম করোনার অস্তিত্ব পাওয়া যায়। তবে সে সময় করোনা খুব হাল্কাভাবে তার শরীরে অবস্থান করছিল। এদিকে, বরিস জনসনের হাসপাতালে ভর্তি হওয়ার খবর পাওয়ার পর ব্রিটেনের অনেক সাংসদ বরিসকে দ্রুত আরোগ্য কামনার শুভেচ্ছা পাঠিয়েছেন।